ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

খাদেমুল মোরসালিন শাকীর,কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি

১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:০২

কিশোরগঞ্জে ১৮জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল

10992_Untitled.jpg
 নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ পদের জন্য ১৮জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছে।

সোমবার দুপুর থেকে প্রার্থীরা দলীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে নির্বাচন অফিসে তাদের মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। দুপুর ২টার পর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের জন্য সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আ ন ম রুহুল ইসলাম,স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক শাহ মোঃ আবুল কালাম বারী পাইলট,বিশিষ্ট ঠিকাদার ও সমাজকর্মী রশিদুল ইসলাম রশিদ,উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দলীয় প্রার্থী  (নৌকা) হিসেবে জাকির হোসেন বাবুল,উপজেলা জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে সদ্য পদত্যাগ করা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি রশিদুল ইসলাম ও গাড়াগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বিপ্লব কুমার সরকার উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার মনোয়ার হোসেনের নিকট মনোনয়ন পত্র জমা দেন।

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে মনোনয়ন পত্র জমা দেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম বাবু,বরকত-ই খোদা মুকুল,সাংবাদিক বাদশাহ আলমগীর, প্রাক্তন সাংবাদিক হাফিজুল ইসলাম,মাওলানা ইদ্রিস আলী ও স্বপন চন্দ্র রায়। উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন নাসিমা চৌধুরী,রোকসানা পারভীন,মোকলেজা বেগম,শাপলা বেগম,সাবেক উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিরিনা বেগম ও আওয়ামী লীগ নেত্রী বেগম লাইলী কাদের। তবে বিকাল ৫টার কয়েক মিনিট পরে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার’র কার্যালয়ে আশেক আলী,ভূবণ চন্দ্র, ও রহিদুল ইসলাম এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী শিল্পী রাণী দেরীতে আসায় তাদের মনোনয়ন পত্র জমা নেয়নি উপজেলা নির্বাচন অফিসার মনোয়ার হোসেন।

এ ব্যাপারে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন অফিসার বলেন, নিয়ম অনুযায়ী আমি প্রার্থীদের মনোনয়ন গ্রহন করেছি। ৫টার পরে কোন প্রার্থী উপস্থিত না থাকায় মনোনয়ন পত্র গ্রহন করা বন্ধ করা হয়েছে।