ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:০২

হিজড়াদের জন্য আবাসন স্থাপনের পরিকল্পনা

11022_19.jpg
দেশের হিজড়া সম্প্রদায়ের জন্য ১০ জেলায় সরকারের আবাসন স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সমাজ কল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ। রবিবার জাতীয় সংসদে গোলাম কিবরিয়া টিপুর (বরিশাল-৩) তারকা চিহ্নিত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, হিজড়া সম্প্রদায়ের অধিকার সুরক্ষা, স্বাবলম্বী ও দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য সরকার কর্তৃক হিজড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। চলতি অর্থ বছরে হিজড়া খাতে প্রায় সাড়ে ১১ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

মন্ত্রী জানান, ২০১২-১৩ অর্থবছরে দেশের ৭টি জেলায় এবং এ কর্মসূচি শুরু হয়। বরাদ্দের পরিমাণ ছিল ৭২ লাখ ১৭ হাজার টাকা। পরবর্তীতে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে কর্মসূচিটি সম্প্রসারিত ৬৪ জেলায় বাজেট বরাদ্দ বৃদ্ধি পেয়ে ১১ কোটি ৪০ লাখ টাকা উন্নীত হয়।
এ কার্যক্রমের গৃহীত পদক্ষেপসমূহ হচ্ছে
১. ৫০ বছর বয়স বা তার বেশি বয়সের ২৫০০ জন অক্ষম ও অসচ্ছ্বল হিজড়াদের বয়স্ক ভাতা/বিশেষ ভাতা দেয়া হয়। তাদের মাসে ৬০০ টাকা করে দেয়া হচ্ছে।

২. হিজড়া সম্প্রদায়ের জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় তাদের সন্তানদের চারটি স্তর (প্রাথমিক স্তর-সাত শত, মাধ্যমিক স্তরে-আট শত, উচ্চমাধ্যমিক- একহাজার এবং উচ্চতর স্তরে ১২শ’ টাকা) শিক্ষাবৃত্তি দেয়া হয়। শুরুতে ১৩৫ জন হতে বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয়ে বর্তমানে মোট ১৩৫০ জনকে শিক্ষা উপবৃত্তি দেয়া হচ্ছে।

৩. কর্মক্ষম হিজড়া জনগোষ্ঠীর দক্ষতা বৃদ্ধি ও আয়বর্ধনমূলক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করে সমাজের মূল স্রোতধারায় আনার লক্ষ্যে ৫০ দিন করে তাদের বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান এবং প্রত্যেকে এক হাজার টাকা করে প্রশিক্ষণের পর আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়। এখন পর্যন্ত ৭ হাজার ৬৫০ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান ও প্রশিক্ষণের পর সহায়তা দেয়া হয়েছে। এছাড়াও ১০ জেলায় হিজড়াদের জন্য আবাসন স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে।