ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

এনএনবিডি ডেস্ক:

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:০২

‘আদালতে বৈধতা প্রমাণিত ২৯০ সাংসদের পদ’

11025_58.jpg
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত ২৯০ সাংসদের পদে থাকার বৈধতা নিয়ে করা রিটটি সরাসরি খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিল সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ সোমবার এই আদেশ দেন।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, আদালতের এই আদেশে প্রমাণিত হলো, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিতদের সাংসদ হিসেবে শপথ নেওয়া ও পদে থাকা বৈধ, সংবিধানসম্মত।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তাহেরুল ইসলাম একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিতদের পদে থাকার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে গত মাসে রিটটি করেন। এর ওপর শুনানি শেষে আজ আদেশ দেওয়া হয়।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মাহবুব উদ্দিন খোকন ও সাকিব মাহবুব। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান।

পরে মোখলেছুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, রিট আবেদনে দাবি করা হয়, দশম সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই একাদশ সংসদে নির্বাচিতরা শপথ নিয়ে দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন। অথচ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিতরা ৩ জানুয়ারি শপথ নেন। ভবিষ্যতে দায়িত্বপালনের জন্য তাঁরা এই শপথ নেন। দশম সংসদের মেয়াদ শেষে ৩০ জানুয়ারি সংসদ অধিবেশনের মধ্যে দিয়ে একাদশ সংসদের নির্বাচিতরা কার্যভার নেন। এ ক্ষেত্রে আইনের কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি। এদিক বিবেচনায় নিয়ে আদালত সরাসরি রিটটি খারিজ করে দেন।

রিট আবেদনকারী আইনজীবী সাকিব মাহবুব বলেন, হাইকোর্টের এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করা হবে।

গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ হয়। নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় পায় আওয়ামী লীগ। দশম জাতীয় সংসদের পাঁচ বছর পূর্তি হয় ২৮ জানুয়ারি। এর এক দিন পরই একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন হয়।