ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG

এনএনবিডি ডেস্ক

১৯ মার্চ ২০১৯, ১১:০৩

রাঙ্গামাটিতে ব্রাশফায়ার, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭

11107_8.jpg
পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটিতে অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের গুলিতে অন্তত ছয়জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন জেলা পুলিশ সুপার।

এরপর রাতে আরো একজন মারা গেছেন বলে জানা যাচ্ছে।
রাঙ্গামাটির পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর কবির সন্ধ্যায় বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছিলেন যে ভোট শেষ করে ফেরার পথে অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের গুলিতে আহত কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক, ফলে মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

"আরো কয়েকজন গুরুতর আহত রয়েছে। তাই নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে।"

রাত বারোটার পরে রাঙ্গামাটির সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে জানিয়েছেন, গুরুতর আহত আরো এক ব্যক্তি মারা গেছেন।

এর আগে সদর থানার পুলিশ বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে দু'জন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার এবং একজন নারী রয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে দুজনের নাম জানা গেছে। এরা হলেন - বদিউল আলম ও আমিন মাস্টার।

ঘটনার বিবরণ যা জানা যাচ্ছে
বাঘাইছড়ি উপজেলার নির্বাচনে বাঘাইরহাট ও মাচালং ভোট কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন শেষে সন্ধ্যা ৬টার দিকে বাঘাইছড়ি ফিরছিলেন ওই দুটি কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করা কর্মকর্তা, আনসার ও পুলিশ সদস্যরা।

তাদের বহনকারী দুটি গাড়ি দীঘিনালা বাঘাইছড়ি সড়কের নয় কিলোমিটার এলাকায় পৌঁছানোর পর পাশের পাহাড় থেকে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা 'ব্রাশফায়ার' করে।

ফলে ঘটনাস্থলেই কয়েকজন নিহত ও অন্যরা গুরুতর আহত হন।

পুলিশ সুপার আলমগীর কবির জানান, ঐ ঘটনায় ২৭ জন আহত হয়েছেন।

তাদেরকে বিজিবির হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

কারা এই হামলা চালিয়েছে তা এখনো স্পষ্ট নয়।

আলমগীর কবির জানিয়েছেন, জায়গাটি অত্যন্ত দুর্গম। ঘটনার পরে সেখানে টহল বাড়ানো হয়েছে।

এছাড়া আহতদের একটি অংশকে রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সাংবাদিক সুনীল কান্তি বড়ুয়া।
সূত্র : বিবিসি