ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১১ এপ্রিল ২০১৯, ১৪:০৪

খাবার-টাকা বিতরণ ইভিএম ভাঙচুর, সংঘর্ষের মধ্যেই চলছে ভারতের নির্বাচন

11257_vvvv.jpg
ভোটার তালিকা থেকে ব্যাপকহারে ভোটারদের নাম মুছে ফেলা, বিভিন্ন জায়গায় ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নামে খাবার, টাকা বিতরণ, সংঘর্ষ, বিরোধীদের বিক্ষোভ ও ইভিএম বিকল হওয়ার পর আছড়ে ভেঙে ফেলা-সহ নানামুখী অভিযোগের মাঝেই ভারতে লোকসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হওয়া দেশটির ১৭তম এই নির্বাচনে বিভিন্ন প্রদেশের বিজেপির সঙ্গে বিরোধী দলগুলোর নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের খবরও এসেছে। বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে ত্রিপুরায় বিজেপি ও কংগ্রেস সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষে অন্তত ১২ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারে তৃণমূল কংগ্রেসের হামলায় ভারতীয় জনতা পার্টির চার সমর্থক আহত হয়েছেন। অন্ধ্রপ্রদেশে তেলেগু দেশম পার্টির এক প্রার্থী বিরোধীদের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন। এই প্রদেশে জনসেনা পার্টির একটি প্রার্থীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ভেঙে ফেলার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার ভোট শুরুর কয়েক ঘণ্টা পর ভারতে গুগল সার্চে ট্রেন্ডে পরিণত হয়েছে ‘কীভাবে ভোটের কালি মুছে ফেলা যায়?’

নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল ভোট গণহারে মুছে ফেলার অভিযোগ করেছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেয়া এক বার্তায় তিনি বলেন, পুরো ভারত থেকে নজিরবিহীনভাবে ভোট মুছে ফেলার খবর আসছে।

ভারতীয় ধনকুবের কিরণ মজুমদার শায়ের মায়ের নাম ভোটার তালিকায় নেই। কিরণের এমন অভিযোগের বরাত দিয়ে ওই টুইট করেছেন কেজরিওয়াল।

মহারাষ্ট্রের গাদচিরলি আসনের একটি ভোটকেন্দ্রের কাছে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে এতে এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। নকশালপন্থীরা ওই এলাকায় গিয়ে ভোটারদের ভোটদান থেকে বিরত থাকার হুমকি দিচ্ছে।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে প্রথম দফায় ১৮টি রাজ্য ও দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ৯১ আসনে ভোটগ্রহণ চলছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকে শুরু হয়েছে; চলবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

ভারতীয় পার্লামেন্টের নিম্ন কক্ষ লোকসভার ৫৪৩ আসনে মোট সাত ধাপে ভোট হবে। বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া এই ভোট শেষ হবে আগামী ১৯ মে।

৯০ কোটি ভোটারের বিশাল এই নির্বাচনযজ্ঞে শেষে ২৩ মে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করবে দেশটির জাতীয় নির্বাচন কমিশন। দেশটিতে সরকার গঠনের জন্য ২৭২টি আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে হবে যেকোনা দলকে।

সূত্র : ফার্স্টপোস্ট, ইন্ডিয়া ট্যুডে, দ্য নিউজ মিনিট।