ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৭:০৪

সুদানের সামরিক পরিষদের নতুন প্রধান কে এই বুরহান?

11275_1.jpg
সুদানের সামরিক কাউন্সিলের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন কর্ণেল আব্দুল ফাত্তাহ বুরহান। তিনি প্রেসিডেন্ট বশিরকে ক্ষমতা থেকে সড়ানোর ঘোষণাদাতা তিনজনের মধ্যে একজন । নতুন এই সামরিক কাউন্সিলের প্রধান রাজনৈতিক কোন দলের বা ব্যাক্তির সাথে সম্পৃক্ততা স্থাপন করবেন না বলে তার ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে।

এর আগে ১১ মার্চ সুদানে সামরিক অভ্যুন্থানের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশিরকে সরিয়ে দেয়ার পর জেনারেল আওয়াদ ইবনে আউফ নিজেকে সামরিক কাউন্সিলের প্রধান ঘোষণা করেন।

জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান (৬০) সুদানের সীমান্তরক্ষার দায়িত্ব পালন করেন ও পরবর্তীতে চীনে সামরিক দূত হিসেবে নিযুক্ত হন। বুরহান পরবর্তীতে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কমান্ডার হন এমনকি স্থল বাহিনীর কমান্ডার হিসেবে তাঁর ক্যারিয়ার গড়ে তোলেন।

তিনি মিলিটারী কলেজের প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করেন পূর্ব সুদানে, তিনি ২০১১ সালে দক্ষিণ সুদান আলাদা হয়ে যাওয়ার সময় দেশে কমান্ডার হিসেবে যুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন।

ক্ষমতাচ্যুত সাবেক প্রেসিডেন্ট বশির দেশে চরম প্রতিবাদ-বিক্ষোভের মুখে পড়েন, এবং তিনি সেনাবাহিনীতে নতুন নিয়োগ দেন। এমতাবস্থায় বশির চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসের ২৬ তারিখ স্থলবাহিনীর জেনারেল হিসেবে নিয়োগ দেন তাকে, পরবর্তীতে স্থল বাহিনীর মহাপরিদর্শক নিয়োগ দেন জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহানকে।

জেনারেল বুরহান ইয়েমেনে সামরিক বাহিনীর সমন্বয়ক থাকাকালীন একাধিকবার সংযুক্ত-আরব আমিরাত সফর করেছেন। সুদানের কোন রাজনৈতিক দল বা ধর্মী গোষ্ঠির সাথে বুরহানের কোন সম্পর্ক নেই বলে নিশ্চিত করেছে তাঁর একটি বিশ্বস্ত সূত্র। তারা জোর দিয়ে বলছেন, তিনি সুদান সামরিক বাহিনীর সিনিয়র একজন ব্যক্তিত্ব যার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে কোন অভিযোগ নেই।

দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী আওয়াদ ইবনে আওফ নিজেকে গত ১১ এপ্রিল দুই বছরের জন্য সামরিক কাউন্সিলের প্রধান ঘোষণা করে দেশটির প্রশাসনের নিয়ন্ত্রন নেন।

যাহোক, ইবনে আওফ ঘন্টার ব্যবধানে পদত্যাগ করেন এবং বুরহানকে তার উত্তরসূরী হিসেবে নিযুক্ত করেন, এবং তিনি পদ গ্রহণ ও শপথ নেন।