ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৪ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:০৪

লিবিয়ায় সংঘর্ষে ১২১ জন নিহত, আহত ৫৬১: বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা

11284_12.jpg
ফাইল ছবি
লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় কর্তৃপক্ষের খলিফা হাফতারের নেতৃত্বাধীন সামরিক বাহিনী লিবিয়ার ত্রিপলী নিয়ন্ত্রনে নেয়ার জন্য চালানো হামলায় এখন পর্যন্ত ১২১ জন নিহত আহত হয়েছেন অন্তত আরো ৫৬১ জন। রবিবার বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা এক প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরেছে।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার লিবিয়ার দায়িত্বশীল ব্যক্তি এক টুইট বার্তায় বলেন, ত্রিপলীতে সংস্থাটি আরো স্বাস্থ্যসেবাদানকারী ও ওষুধপত্র পাঠানোর কথা বলেন, এবং গত ৪ এপ্রিল স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর ও তাদের ব্যবহৃত গাড়িতে হামলার নিন্দা জানান।

হাফতারের বাহিনী লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলের সোয়েত নিয়ন্ত্রন করে, এবং ত্রিপলী ভিত্তিক করে জাতিসংঘের সমর্থিত জাতীয় ঐক্যসরকারের যোদ্ধাদের প্রতি নমনীয় হওয়ার জাতিসংঘের আহবানকে প্রত্যাখ্যান করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকার সংস্থা লিবিয়ায় চলমান সহিংসতায় ১৩৫০০ মানুষের বাস্তুচ্যুত হওয়া ও ৯০০ এর অধিক মানুষ আশ্রয়শিবিরে বাস করার কথা বলেন।

এছাড়া রবিবার ওসিএইচএ এক বিবৃতিতে বলেন, হামলায় তিনজন স্বাস্থ্যকর্মী নিহত ও পাঁচটি এ্যাম্বুলেন্স ধ্বংস হয়েছে।

উভয় পক্ষ স্থলযুদ্ধ ও দৈনিক বিমান হামলা চালাচ্ছে ও বেসামরিক নাগরিকদের উপর হামলার জন্য একে অপরকে দায়ী করছে।

আফ্রিকার উত্তরাঞ্চলীয় দেশ লিবিয়ায় ২০১১ সালে ন্যাটো নেতৃত্বাধীন জোটের হামলায় চারদশকের লৌহ মানব মুয়াম্মার আল গাদ্দাফির পতনের সময় থেকেই দেশটি অশান্ত হয়ে পড়ে। একাধিক সশস্ত্র গোষ্ঠী বিভিন্ন এলাকার নিয়ন্ত্রন নেয়ার চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে।

খলিফা হাফতার লিবিয়ার পূর্বঞ্চলী একটি বিদ্রোহী প্রশাসনকে সর্মথন দিয়েছে, যারা জাতিসংঘের সমর্থিত ফায়েজ সারাজের নেতৃত্বে যৌথ সরকার গঠন করতে অস্বীকার করেছে।