ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ মার্চ ২০১৮, ১১:০৩

ভারতকে মোকাবেলায়

চীনা প্রতিরক্ষা শীর্ষ পদে শক্ত ব্যক্তি

2079_7.jpg
ফাইল ছবি

মন্ত্রিসভার রদবদল করলেন চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেচিয়াং। নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী হচ্ছেন লেফটেনান্ট জেনারেল ওয়েই ফেংহে। ভারতের বিচারে এই নিয়োগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ফেংহেকে ক্ষেপণাস্ত্র বিশেষজ্ঞ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। সাম্প্রতিক দোকালাম বিরোধের প্রেক্ষাপটে তাই এহেন সমর বিশেষজ্ঞকে প্রতিরক্ষামন্ত্রীর পদে বসিয়ে নয়াদিল্লিকে বেইজিং সতর্ক বার্তাই দিতে চাইছে বলে অনুমান ভারতীয় মহলের। ভারতীয় মিডিয়ায় এ খবর প্রকাশ করেছে।

চীনের সামরিক বাহিনীর আধুনিকীকরণ ও সমগ্র বিশ্বে লাল ফৌজকে শক্তিশালী হিসেবে তুলে ধরতে ফেংহের ভূমিকা রয়েছে। শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা তৈরির পিছনেও রয়েছেন ওই সমরনায়ক।

এদিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ওয়াইকে স্টেট কাউন্সিলারের শীর্ষ কূটনীতিক হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে। গত কয়েক বছরের মধ্যে এই প্রথম কোনো পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে এই দায়িত্ব দেয়া হলো। চীনের সংবিধান অনুসারে, স্টেট কাউন্সিলারের পদ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চেয়ে উপরে। মনে করা হচ্ছে, ভারত-চীন সীমান্ত আলোচনার গুরুদায়িত্ব এবার দেয়া হবে ওয়াং ওয়াইকে। ঘরোয়া রাজনীতিতে ওয়াং বরাবরই কট্টরপন্থী বলে পরিচিত। প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও স্টেট কাউন্সিলের প্রধান পদে দুই কড়া ব্যক্তিকে নিয়ে এসে কার্যত নয়াদিল্লিকেই চাপের মুখে রাখার কৌশল নিয়েছে বেইজিং।
এদিকে, এদিন চীনের প্রেসিডেন্ট পদে পুনরায় নির্বাচতি হওয়ায় জি জিনপিংকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।