ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

বিশেষ প্রতিনিধি

১ জানুয়ারি ২০১৮, ১৫:০১

২০১৭ সালে সর্বাধিক ১৩ মামলার তদন্ত রিপোর্ট জমা দিয়েছে তদন্ত সংস্থা

269_mxcp_1514683692469.jpg


২০১৭ সালে সর্বাধিক ১৩ মামলার তদন্ত রিপোর্ট জমা দিয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা।রোববার ২০১৭ সালের শেষ দিনে সংস্থা তাদের ৫৭তম প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ময়মনসিংহের ত্রিশালের একটি তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ এবং তা চীফ প্রসিকিউটরের অফিসে জমা দেয়া হয় এইদিন। এটি ২০১৭ সালের ১৩তম তদন্ত প্রতিবেদন।

আইসিটি গঠন হওয়ার পর সংস্থাটি এ নিয়ে মোট ৫৭ টি মামলার তদন্ত সম্পন্ন করেছে ।সংস্থার সমন্বয়কারি আব্দুল হান্নান খান ও সানাউক হক রোববার সংস্থার ধানমন্ডির কার্যালয়ে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।তারা জানান,২০১১ সালে ৭টি,২০১২ সালে ৩টি,২০১৩ সালে ৭টি,২০১৪ সালে ৭টি,২০১৫ সালে ১০টি,২০১৬ সালে ১০টি এবং ২০১৭ সালে ১৩টি মামলার তদন্ত সম্পন্ন করেছে।

হান্নান খান জানান,এই সংস্থার তদন্তের ভিত্তিতে ৫৭ টির মধ্যে ২৯টি মামলার রায় হয়েছে।মোট ৩৭ জনের মৃত্যুদন্ড হয়েছে। কার্যকর হয়েছে ৬ জনের মৃত্যুদন্ড।এতে সংস্থা ১৯৭১ সালের মোট ২৫২ জনকে অভিযুক্ত করেছে। সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে পলাতক রয়েছে ২২ জন।

সানাউল হক দাবি করেন,বিশ্বের যেখানেই এখন যুদ্ধাপরাধের মামলার কার্যক্রম চলছে তার যেকোনটার তুলনায় আমরা তদন্তে এগিয়ে আছি। আমাদের তদন্ত নিখুত। তার প্রমান এ পর্যন্ত কোন মামলায়ই একজন আসামীও খালাস পায়নি।অথচ আমরা ৪৬ বছর পূর্বের অপরাধের তদন্ত করছি।
আপিল বিভাগে ট্রাইব্যুনালের মামলা দ্রুত শুনানী করার উপর গুরুত্বারোপ করে সংস্থার প্রধান বলেন,এটি একটি স্পেশাল ‘ল’। এটাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেয়া উচিত। এটাকে অন্যান্য মামলার সাথে চললে তো আর স্পেশালিটি থাকলনা।

রোববারের প্রতিবেদনে ময়মনসিংহের ত্রিশালের ৯ জনকে অভিযুক্ত করেছে সংস্থা।পরে তা চীফ প্রসিকিউটরের অফিসে জমা দেয়া হয়।তাদের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হলেন ইসলামী ব্যাংকের সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এবিএম মুফাজ্জল হোসাইন। তার গ্রামের নাম তালতলা। অভিযুক্ত অন্য ৮জনের মধ্যে রয়েছেন দেওপাড়া গ্রামের আপন ভাই আনিসুর রহমান মানিক,মোখলেসুর রহমান মুকুল ও সাইদুর রহমান রতন,এই তিন ভাইয়ের বাবা আব্দুল খালেক সরকার। তাদের পালিত ভাই শামসুল হক বাচ্চুও ৪ নং আসামী। এই মামলায় ত্রিশাল থানার আছমত আলি ফকিরের তিন ছেলে শামসুল হক ফকির,নুরুল হক ফকির ও সুলতান ফকির ৫,৬ ও ৭ নং আসামী। ৮নং আসামী করা হয়েছে মুফাজ্জল হুসাইনকে। আর ৯ নং আসামী হলেন ত্রিশালের হদ্দের ভিটা গ্রামের গেদু চেয়ারম্যানের ছেলে নকিব হোসেন আদিল সরকার।

এই ৯ জনের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালে ৩জনকে হত্যাসহ অপহরন,আটক,নির্যাতন,মুক্তিপন আদায়,লুটপাট, অগ্নিসংযোগ,হত্যা ও লাশ গুম করার ৪ টি অভিযোগ আনা হয়েছে।৯জন আসামীর মধ্যে মুফাজ্জল হুসাইন ও শামসুল হক বাচ্চু এই দুইজন আটক রয়েছেন। বাকি ৭জনই পলাতক ।