ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

সরকারের সঙ্গে বৈঠকে সম্পাদক পরিষদ

১৯ এপ্রিল ২০১৮, ১৪:০৪

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন

2781_nnbd-predd.jpg
সরকারের তিন মন্ত্রীর সঙ্গে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে সম্পাদক পরিষদের বৈঠক শুরু হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে আইন মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে শুরু হওয়া এ বৈঠকে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সভাপতিত্ব করছেন। আরো উপস্থিত আছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমদ পলক।

প্রথম আলো, ডেইলি স্টার, ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস, নিউজ টুডে, নয়াদিগন্ত, ইনকিলাব, যুগান্তর, কালের কণ্ঠ, বাংলাদেশ প্রতিদিনসহ বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদকরা অংশ নন।

গত ১৯ জানুয়ারি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের খসড়া অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। এ খসড়া বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আইনের ১৭ ধারায় বলা হয়েছে, ডিজিটাল সিস্টেম ব্যবহার করে ক্ষতিসাধন করলে ১৪ বছরের কারাদণ্ড বা এক কোটি টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করার বিধান রাখা হয়েছে। কারো কম্পিউটার সিস্টেম ক্ষতিগ্রস্ত করলে এক বছরের কারাদণ্ড বা তিন লাখ টাকা জরিমানার বিধার রয়েছে। ২১ ধারায় বলা হয়েছে, ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করে মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, জাতির পিতার অবমাননা করা হলে অথবা অবমাননায় মদদ দেওয়া হলে ১৪ বছরের কারাদণ্ড অথবা এক কোটি টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা যাবে।

এ ছাড়া আইনের ২৮ ধারা অনুযায়ী, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করলে ১০ বছরের কারাদণ্ড বা ২০ লাখ টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ড দেওয়া যাবে। কারো মানহানি করলে তিন বছরের কারাদণ্ড বা পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা, ৩২ ধারা অনুযায়ী সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের অতি গোপনীয় তথ্য সংগ্রহ, প্রকাশ বা গুপ্তচরবৃত্তি করলে ১৪ বছরের কারাদণ্ড বা ২৫ লাখ টাকা জরিমানা করার বিধান রাখা হয়েছে বলেও জানান সচিব।