ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

২ জানুয়ারি ২০১৮, ১১:০১

বিমান হামলায় নিহত ওসামা বিন লাদেনের নাতি

284_281540_185.jpg

আল কায়েদা প্রধান ওসামা বিন লাদেনের নাতি নিহত হয়েছেন বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্র জানিয়েছে৷

পাক-আফগানিস্তান সীমান্তে বিমানহানায় মৃত্যু হয়েছে ১২ বছর বয়সী ওসামা বিন লাদেনের নাতি ওসামা বিন হামজা বিন লাদেনের৷ তবে, সেটি আজ নয়৷ বেশ কয়েক মাস আগেই তার মৃত্যু হয়৷ কিন্তু সম্প্রতি একটি চিঠি ফাঁস হয়৷ যেটি ওই নিহত কিশোরের বাবা হামজা বিন লাদেনের লেখা৷ সেই চিঠিতেই উঠে আসে এই মৃত্যুর কথা৷

সূত্রের খবর, সেই চিঠিটি গত বছর জুলাই অথবা অগস্ট মাসে লেখা৷ যদিও ওই চিঠিটিতে পরিষ্কার করে লেখা নেই মৃত্যুর কারণ৷ বিমানহানা নাকি ওসামা বিন হামজা বিন লাদেনের মৃত্যুর অন্য কারণ রয়েছে সেটি স্পষ্ট নয়৷

টেরর মনিটর৷ এই অনলাইন গ্রুপটি উগ্রপন্থী সংগঠনগুলোর অনলাইন গতিবিধির উপরে কড়া নজর রাখে৷ সেই টেরর মনিটরই ট্যুইট করে ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যুর খবরটি প্রকাশ্যে আনে


বর্ষবরণের শুরুতেই ট্রাম্পের দেশে পারমাণু হামলার হুমকি কিমের
‘উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলে তার ফল খুব একটা ভালো হবে না!’ বর্ষবরণের শুরুতেই আমেরিকাকে কড়া বার্তা দিলেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন৷

আমেরিকাকে শুধু হুমকিই দেননি তিনি৷ কিম যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী৷ তার মতে, আমেরিকা উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ কিংবা কিম বিরোধী কোনো পদক্ষেপই নাকি গ্রহণ করতে পারবে না৷

একইসঙ্গে তিনি ট্রাম্পের দেশকে সতর্ক করে বলেন, তার টেবিলের নিচেই রয়েছে পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের একটি বোতাম৷ সেটি দিয়ে যেকোনো মুহূর্তে আমেরিকার উপরে পারমাণবিক হামলা চালাতে পারে উত্তর কোরিয়া৷ এমনকি উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক ক্ষেপনাস্ত্র হামলার নাগালেই রয়েছে আমেরিকা৷ তাই আমেরিকা যদি কোনো বেচাল করে তাহলে আমেরিকার উপরে হামলা চালাতে এক মিনিটও দেরি হবে না কিমের৷ একইসঙ্গে তিনি বলেন, এটি কোনো হুমকি নয়৷ এটিই নাকি বাস্তব৷

অপরদিকে, বর্ষবরণ উপলক্ষে আপাতত পরিবার নিয়ে ফ্লোরিডায় রয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ কিমের হুমকির পাল্টা বার্তা হিসেবে তিনি এখনও বিশেষ মুখ খোলেননি৷ বলেন, কিমের হুমকির বিষয়টি তিনি সবটাই জানেন৷

আমেরিকাকে যেভাবে হুমকি দিয়েছেন কিম৷ অপরদিকে, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতি কিন্তু তিনি সহানুভূতির বার্তাই দিয়েছেন৷ আগামী মাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হতে চলেছে৷ সেই কারণে কোরিয়ার কাছে আগামী মাস বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেন তিনি৷ এমনকি তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সম্পর্কের বরফ গলাতেও প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন সাংবাদিকদের দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে৷