ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

মাসুদ রানা

৭ মে ২০১৮, ২০:০৫

একজন পৌরপিতা সাইদুল করিম মিন্টু

3189_ju rana.jpg
নিঃস্বার্থভাবে দরিদ্র, মেধাবী শিক্ষার্থী ও শিশু কিশোরদেরসহ নিরলস সমাজসেবা করে যাচ্ছেন তিনি।একজন সৎ ও ভাল মনের মানুষ। জীবনের চাওয়া পাওয়া সবকিছুইই তার এলাকার সহজ সরল মানুষকে নিয়ে।

আধুনিক পৌরসভার রূপকার হিসেবেই গোটা জেলার মানুষ তাকে চেনে।তারই অর্থ ও নিরলস শ্রম ও আন্তরিকতায় শিক্ষার আলো ছড়িয়ে যাচ্ছে জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে। দরিদ্র শিক্ষার্থীরা তার আর্থিক সহায়তায় দেশকে আলোকিত করছে।নিজের ভেতর লুকিয়ে থাকা আলো ছড়িয়ে দিচ্ছে। তার ইচ্ছা দরিদ্র শিক্ষার্থীদের জীবন শিক্ষার আলোয় আলোকিত হোক দেশ,বিশ্ব আজ ও আগামী। উদারতা ও মানসিকতার ঔকান্তিকতায় নির্যাতিত ও নিষ্পেষিত মানুষের বটবৃক্ষ তিনি।
তিনি ১৯৬৪ সালের ২ জুন ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুন্ড থানার ভায়না গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।তার পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল কুদ্দুস।তিনি রাজনীতিকে মানব সেবার পন্থা হিসাবে নিয়েছেন। বর্তমানে তিনি ঝিনাইদহ পৌরসভার মেয়র, ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ সেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

তার স্বপ্ন ছিল একটি শিক্ষা নির্ভর ঝিনাইদহ। ছাত্রসমাজকে এগিয়ে নিতে শিক্ষা উপকরণ, স্কুলড্রেস,টিফিন বাটি, মেধাবী সংবর্ধণা, উপবৃত্তি ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য সাইকেল বিতরণ করে সুশিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার উৎসাহিত করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া এক দরিদ্র শিক্ষার্থী জানায়,অভাবী পরিবারে আমার জন্ম। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনার সুযোগ পেলেও আর্থিক অভাবে ভর্তি হতে না পারায় পড়েছিলাম অন্ধকারে। তখন নগর পিতা আমাকে ডেকে ভর্তির টাকা সহ যাবতীয় সকল ব্যবস্থা করে দেন।

নগর পিতা জানান,দরিদ্র ও সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষাদের শিক্ষার আলোয় আলোকিত হোক দেশ, বিশ্ব, আজ ও আগামী।