ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

১৮ জুলাই ২০১৮, ০৮:০৭

এরদোগানের প্রশংসায় ট্রাম্প

5290_5.....jpg
তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তুরস্কের প্রতিরক্ষা ব্যয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে ট্রাম্প এ প্রসংশা বাক্য উচ্চারণ করেন।

১৬ জুলাই CBS News এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতিরক্ষা ব্যয়ের ব্যাপারে ন্যাটোর অন্য নেতাদের উপর হতাশ হওয়ার পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ‘সব কিছুই সঠিক পথে হয়েছ’ জানিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন।

সম্প্রতি ব্রাসেল্সে ট্রাম্প ন্যাটোর অন্যান্য নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাত করেছিলেন।


১৬ জুলাই Eurasia গ্রুপের প্রধান এবং CBS News এর বৈশ্বিক বিষয়াবলীর জেষ্ঠ সংবাদ দাতা ইয়ান ব্রেমার বলেন, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ন্যাটোর সম্মেলনে ট্রাম্পের অগ্নিমূর্তি রুক্ষ মেজাজ থেকে শুধুমাত্র এরদোগানই নিরাপদে ছিলেন।

ব্রেমার আরো জানান যে, ‘ট্রাম্প খুবই হতাশ ছিলে; ব্যয় বাড়ানোর ব্যাপারে তিনি অন্য নেতাদের কাছ থেকে প্রতিশ্রুতি পাচ্ছিলেন না। তাদের মধ্য অনেকেই বলেন ‘ঠিক আছে, আমরা এ ব্যাপারে আইনসভাতে আলোচনা করবো। আমাদের নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হবে, আমরা কেবল এ কথা বলতে পারি না যে আমরা আরো ব্যয় করতে যাচ্ছি, আমাদের আইনগত প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হবে’।

ট্রাম্প তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের কথা তুলে ধরে বলেন, ‘এখানে এরদোগানই একমাত্র নেতা যিনি সঠিক ভাবেই সবকিছু করেছেন এবং এর পরেই তিনি সত্যি সত্যিই এরদোগানকে টোকা মেরেছেন’।

ব্রেমার অবশ্য আরো বলেন যে, ন্যাটোর আলোচনার শেষের দিকে মিত্রদের প্রতিরক্ষা ব্যয় বাড়ানোর ব্যাপারে ট্রাম্প নিজের কৃতিত্ব দাবী করেন যদিও ব্যয় বাড়ানোর কোনো ঘোষণা ছিল না।

‘স্পষ্টতই ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুত ছিলেন শেষ ব্যক্তি যিনি সামিটে হস্তক্ষেপ করেন’, বলে ব্রেমার জানান। ‘ট্রাম্পের সাংবাদিক সম্মেলনের পূর্বে তিনি (মার্ক রুত) বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট, দেখুন, আপনি সত্যিই হতাশাগ্রস্ত। কেন আপনি বিজয়ের অংক করছেন না? মিত্ররাতো আপনি প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর থেকেই ৩২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অতিরিক্ত খরচ করে আসছে। এ জন্য কৃতিত্ব গ্রহণ করুন।’ বৈঠক ছেড়ে যাওয়ার পূর্বে এটাই ট্রাম্পের শোনা শেষ শব্দ।