ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ জুলাই ২০১৮, ১১:০৭

ঘুড়ির কাছে অসহায় ইসরাইলিরা!

5295_1.JPG
ফাইল ছবি
ইসরাইল ফিলিস্তিনি ঘুড়ির কাছে পরাজিত হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন লেবার পার্টির প্রধান এভি গ্যাবি।তিনি বলেছেন, উন্নত সমরাস্ত্রের অধিকারী হওয়া সত্ত্বেও ঘুড়ি মোকাবেলা করতে পারছে না সরকার ও সামরিক বাহিনী। এটা ইসরাইলের জন্য বড় পরাজয়।

এর আগেও ইসরাইলি গণমাধ্যমের খবরে স্বীকার করা হয়েছে, গাজা থেকে উড়ে যাওয়া ঘুড়ির সামনে অসহায় হয়ে পড়েছে ইসরাইলিরা। ঘুড়ি মোকাবেলায় বিশেষ ড্রোন তৈরি করেও পরিস্থিতি সামাল দিতে পারছে না তারা।

ইসরাইলের রাষ্ট্রীয় টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজা থেকে উড়ে আসা শত শত ঘুড়ি ধ্বংস করা যাচ্ছে না। ইসরাইলি ড্রোনগুলো আকাশেই ঘুড়িগুলোকে ধ্বংস করে দেওয়ার চেষ্টা করছে কিন্তু সব ঘুড়ি ধ্বংস করা সম্ভব হচ্ছে না। কারণ উড়ে আসা ঘুড়ির সংখ্যা অনেক।

আয়রন ডোমের ব্যর্থতায় লজ্জিত ইসরাইল
ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা 'আয়রন ডোম' আবারো চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে বলে স্বীকার করেছে ইসরাইল।
ইসরাইলি সেনাবাহিনী রোববার জানিয়েছে, শনিবার ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ সংগ্রামীরা ইসরাইলের উপশহরগুলো লক্ষ্য করে ১৭৪টি রকেট ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এর মধ্যে মাত্র ৩০টি রকেট ও ক্ষেপণাস্ত্রকে ধ্বংস করতে সক্ষম হয়েছে 'আয়রন ডোম'।

গাজা থেকে নিক্ষিপ্ত রকেট ও ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর অধিকাংশই গাজা সীমান্তের কাছে ইসরাইলের উপশহরগুলোতে আঘাত হেনেছে।

ইসরাইলি মিডিয়া ক্ষয়ক্ষতির খবর সেন্সর করলেও সিদরুত উপশহরে তিন ইসরাইলি সেনা আহত হওয়ার খবর ফাঁস হয়ে গেছে। ইসরাইলি সেনাবাহিনীও পরবর্তীতে এ খবরের সত্যতা স্বীকার করেছে।

ইসরাইল আরো বলেছে, তারা গাজা উপত্যকায় হামাসসহ বিভিন্ন প্রতিরোধ সংগঠনের ৪০টিরও বেশি অবস্থানে হামলা চালিয়েছে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গাজায় শনিবারের ইসরাইলি হামলায় অন্তত দুই ফিলিস্তিনি শহীদ ও ২৫ জন আহত হয়েছে।

এর আগে গত শুক্রবার গাজায় ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের ওপর হামলা চালায় ইসরাইলি বাহিনী। ওই হামলাতে শহীদ হন ১৫ ও ১৮ বছর বয়সী দুই ফিলিস্তিনি তরুণ।