ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

এনএনবিডি, ঢাকা

২২ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:১০

মন্ত্রীসভা ছোট না করার ই্ঙ্গিত প্রধানমন্ত্রীর

8045_download.jpg
মন্ত্রিসভা ছোট করার দরকার আছে-এমন প্রশ্ন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মন্ত্রিসভা বড় থাকলে কোনো সমস্যা আছে কি? আইনে কোনো বাধা আছে। তাহলে সমস্যা কী? বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই এভাবেই নির্বাচন হয়। এখন দেখা যাক, অপোজিট পার্টি ডিমান্ড করলে করব, না করলে করব না।

সোমবার গণভবনে সৌদি সফর সম্পর্কে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। বিকেল ৪টায় লিখিত বক্তব্য পাঠ শুরু করেন তিনি। এরপর বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

সৌদি আরবে চার দিনের সরকারি সফর শেষে গত শুক্রবার মধ্যরাতে দেশে ফিরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সৌদি বাদশাহ এবং দুটি পবিত্র মসজিদের খাদেম সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সউদের আমন্ত্রণে তিনি এ সফরে গিয়েছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, গত নির্বাচনে তৎকালীন বিরোধীদল বিএনপিকে আহ্বান জানিয়েছিলাম-যেন তারা মন্ত্রিসভায় আসে। সবাই মিলে একটা মন্ত্রিসভা করে নির্বাচন করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তারা আসেনি। পরবর্তীতে আমরা মন্ত্রিসভা ছোট করে একটা নির্বাচন করেছি। কিন্তু এখন প্রেক্ষাপট আলাদা। আগের মন্ত্রিসভায় আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য কোনো দল ছিল না। এখন জনগণের প্রতিনিধিদের প্রায় সবাই মন্ত্রিসভায় রয়েছে। এজন্য মন্ত্রিসভা ছোট করার প্রয়োজনই আছে কিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের অনেকগুলো উন্নয়নমূলক প্রকল্প চলমান রয়েছে, অনেক কাজ করতে হবে। মন্ত্রিসভা ছোট হলে আমাদের উন্নয়নে সমস্যা হবে কিনা সেটাই ভাবছি। আপনার দেখছেন, প্রতি সপ্তাহে ১৮-১৯টি করে প্রকল্প অনুমোদন হচ্ছে। উন্নয়ন যে করা যায়, সেটা দেখাচ্ছি। সব মন্ত্রীরাই প্রচুর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, এখন মন্ত্রিসভা ছোট করে একজনকে দু-তিনটা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিলে পারবে কিনা। এতে উন্নয়নে বাধা হবে কিনা সেটা নিয়ে ভাবতে হবে। আগামী ৩-৪ মাসে উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে আরও এগিয়ে নিতে চাই। যা হোক, আমি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনা করেছি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এভাবে নির্বাচন হয়। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ব্রিটেন, ভারতের মতো দেশে এভাবে নির্বাচন হয়ে থাকে।