ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৮:১০

সংলাপের আগে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে: জারিফ

8053_তেহরান.jpg
২০১৫ সালে পরমাণু সমঝোতা সই করার পর ফটোসেশন
ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, তার দেশ বর্তমান পরিস্থিতিতেও তেল রপ্তানি অব্যাহত রেখে নিজের অর্থনীতিকে গতিশীল রাখতে সক্ষম। তিনি সোমবার জাপানি বার্তা সংস্থা কিওদো’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, বিশ্বের বহু দেশ আমেরিকার একতরফা নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ইরানের সঙ্গে বাণিজ্য চালিয়ে যেতে সম্মত হয়েছে কাজেই তেহরান সহজেই এ নিষেধাজ্ঞার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারবে। জারিফ বলেন, তিন ইউরোপীয় দেশ ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানির পাশাপাশি আরো বহু দেশ পরমাণু সমঝোতা মেনে চলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসার ব্যাপারে মার্কিন সরকারের আগ্রহের কথা উল্লেখ করে জারিফ বলেন, ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসতে হলে আমেরিকাকে আগে নিজের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে হবে।
তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে মার্কিন সরকার ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেছে। কাজেই তাকে আগে পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসতে হবে এবং ইরানের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে। তাহলেই তেহরানের সঙ্গে ওয়াশিংটনের আলোচনায় বসার পরিবেশ তৈরি হবে।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কয়েক বছরের আলোচনার ফসল হিসেবে অর্জিত পরমাণু সমঝোতায় সই করেছিল মার্কিন সরকার এবং ওই সমঝোতার প্রতিটি শব্দ নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছিল। এমন একটি সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর আমেরিকার ওপর আস্থা রেখে আবার সংলাপে বসা বোকামি ছাড়া আর কিছু নয়।

মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ তার সাক্ষাৎকারে আরো বলেন, নিজের স্বার্থ কতটা রক্ষিত হয় তার ওপর নির্ভর করে পরমাণু সমঝোতায় থাকা বা না থাকার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে ইরান।