ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

এনএনবিডি ডেস্ক:

২৮ জানুয়ারি ২০১৮, ১০:০১

ভারতের কেরলে জুম্মার নামাজ পড়ালেন নারী ইমাম জামিতা

837_3.jpg
বিতর্কিত নারী জামিতা
ভারতের কেরলে শুক্রবার জুম্মার নামাজে ইমামতি করেছে জামিতা (৩৪) নামে এক নারী। বলা হচ্ছে, দেশের প্রথম নারী ইমাম হিসেবে তিনি জুম্মার নামাজ পড়িয়েছেন। সাধারণত পুরুষরা ইমামতির দায়িত্ব পালন করে থাকেন।

মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে বিতর্কিত সংগঠন কোরান সুন্নত সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক জামিতা পরিচিত ‘জামিতা টিচার’ নামে। সোসাইটি সূত্রের খবর গতকাল সোসাইটির অফিসে নামাজ পড়ার জন্য হাজির হয়েছিলেন নারীসহ প্রায় ৮০ জন। তাঁদের নামাজ পড়ান মহিলা ইমাম জামিতা।

কথিত বৈষম্যের বিরুদ্ধে বহুদিন ধরেই সরব জামিতা নামের ওই নারী । কট্টরপন্থী মুসলিমরা তাঁকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। ছাড়তে হয়েছে তিরুঅনন্তপুরম। জামিতাকে আশ্রয় দেয় কোরান সুন্নত সোসাইটি নামের একটি বিতর্কিত সংগঠন। জামিতার কথায়, ‘কোরানে নারী-পুরুষদের সমান অধিকারের কথা স্পষ্ট ভাবে বলা রয়েছে। কিন্তু অনেক পুরুষই সহ্য করতে পারেন না কোনো মহিলা নামাজ পড়াবেন। এই সিদ্ধান্তের জন্য প্রবীণরাও আমার সমালোচনা করেছেন।’
ইসলামের প্রবীন স্কলারদের দাবী অনুযায়ী কোন নারীকে ইমাম বানিয়ে সালাত আদায় করার বিধান নেই।এমনকি কোন সহীহ হাদিস ও সাহাবাদের জীবনী এবং বর্ণনা থেকেও ঐরুপ কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি। সাধারনত মুসলিমরা পবিত্র কোরআন শরীফ ও সহীহ হাদীসের আলোকে তাদের জীবনের প্রতিটি কাজ ইবাদাত, ধর্মীয় আচার এবং অনুষ্ঠানাদি সম্পাদন করে থাকে। তাদের ভাষায় জামিতা মুসলিম সমাজে বিভ্রান্তি ছড়াতে ইসলামের পরোক্ষ শত্রুদের দ্বারা প্ররোচিত হয়ে এমন কাজ ও প্রচারনা চালাচ্ছেন।