ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

স্পোর্টস ডেস্ক

৪ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:১১

আবারও ব্যাটিংয়ে ভরাডুবি

8370_362295_115.jpg
সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে নিজেদের প্রথম ইনিংসে অল্পরানেই গুটিয়ে গেছে বাংলাদেশ দল। মাত্র ৫১ ওভারেই অলআউট হয়ে গেছে স্বাগতিকরা, স্কোর বোর্ডে উঠেছে ১৪৩ রান। ফলে প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ে লিড পেয়েছে ১৩৯ রানের।

ব্যাটসম্যানদের দায়িত্বহীনতা আর জিম্বাবুয়ের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিং এই ইনিংসে বাংলাদেশকে দাড়াতে দেয়নি। যার ফলে সফরকারীরা পেল বড় লিড।

রোববার সকালে জিম্বাবুয়েকে দ্রুত গুটিয়ে দিয়ে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ। কিন্তু স্পিনবান্ধব উইকেট বানিয়েও নিজেদের ধসে পড়তে হলো সেই প্রতিপক্ষের পেস আক্রমণেই। স্কোর বোর্ডে ১৯ রান তুলতেই বাংলাদেশ হারায় ৪ উইকেট। জিম্বাবুইয়ান পেসার চাতারা তিনটি ও জারভিস চারটি উইকেট তুলে নিয়ে ব্যাকফুটে ঠেলে দেন স্বাগতিকদের। অথচ এই মাঠে স্পিনাররা সহায়তা পাবে এমন চিন্তা করে মাত্র একজন পেসার নিয়ে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ।

১৯ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর এক পর্যায়ে আশঙ্কা হয়েছিলো ফলোঅনে পড়তে হবে কি না। কিন্তু মিডল অর্ডারে মুশফিকুর রহীম(৩১), নবাগত আরিফুল হক(৪১*) ও মেহেদী হাসান মিরাজের(২১) ব্যাটে সেই লজ্জায় পড়তে হয়নি স্বাগতিকদের। আরিফুল হক শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ৪১ রানে।

ইনিংসের শুরুতে চাতারা যে ধস শুরু করেছিলেন মিডল অর্ডারে সেটা করেছেন বামহাতি স্পিনার সিকান্দার রাজা। দুজনেই নিয়েছেন ৩টি করে উইকেট। এছাড়া জারভিস নিয়েছেন ২ উইকেট।

১৩৯ রানে পিছিয়ে থেকে বাংলাদেশ এই টেস্টে কতটা লড়াইয়ে ফিরতে পারবে সেটি নিয়ে সংশয় রয়েছে। ফিরতে হলে জিম্বাবুয়েকে দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রুত অলআউট করতে হবে।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে দুই ওভার ব্যাটিং করেছ জিম্বাবুয়ে। স্কোর বোর্ডে এক রান তুলেছে দলটি। এরপরই আম্পায়ারদ্বয় দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ ঘোষণা করেন। সোমবার তৃতীয় দিনে আবার ব্যাট করতে নামবে দলটি।