ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

খাদেমুল মোরসালিন শাকীর,কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি

৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৭:১২

জাপার সাবেক সংসদ শওকত চৌধুরীর মনোনয়ন বাতিল চেয়ে নির্বাচন কমিশনে এলাকাবাসীর অভিযোগ

9235_2.jpg
নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের একজন সাধারণ ভোটার বর্তমান সংসদ সদস্যের মনোনয়ন বাতিল চেয়ে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

লিখিত অভিযোগে জানা গেছে,বুধবার নীলফামারী-৪ আসনের (সৈয়দপুর-কিশোরগঞ্জ) বর্তমান সংসদ সদস্য শওকত চৌধুরী আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহনের জন্য মনোনয়ন পত্র গত ২৮নভেম্বর নীলফামারীর সৈয়দপুর ও কিশোরগঞ্জ উপজেলা সহকারী রিটার্নিং অফিসারের নিকট জমা দেন। কিন্তু তিনি নির্বাচনী মনোনয়নপত্রের হলফনামায় তার ঋণ খেলাপির তথ্য গোপন রেখে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেও তার মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা করেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা নাজিয়া শিরিন।

এরই প্রেক্ষিতে বুধবার (৫ ডিসেম্বর) নীলফামারী-৪ আসনের নির্বাচনী এলাকার কিশোরগঞ্জ উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের মাগুড়া মিয়া পাড়ার মৃত মখছুদার রহমানের ছেলে রায়হানুল ইসলাম ভোটার নং-৭৩০৬৫২০১৯৭৯৪ নির্বাচন কমিশনে বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক ঢাকা বংশাল শাখার ঋণ খেলাপির বিষয় উল্লেখ করে অভিযোগ তুলে ধরে প্রার্থীতা বাতিল চেয়ে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয় দেশের কয়েকটি জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় শওকত চৌধুরীর ঋণ খেলাপির বিষয় নিয়ে রিপোর্ট প্রকাশ করা হলেও তিনি তার কোন তোয়াক্কা না করে তথ্য গোপন রেখে মনোনয়নপত্র জমা দেন। অভিযোগকারী মনে করেন যে,ঋণ খেলাপি ব্যক্তি যদি আবার নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে নির্বাচিত হন তাহলে এলাকার উন্নয়নের পরিবর্তে ক্ষতির সমুখিন হবে। তাই এমতাবস্থায় উক্ত প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য শওকত চৌধুরীর সাথে মুঠো ফোনে (০১৭১২২৬৪৩৬৮) যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কমার্স ব্যাংকে আমার লোন ছিলো, কিন্তু আমি বাংলাদেশ ব্যাংকে ৬ কোটি ১৫ লক্ষ টাকা দিয়ে রিসিডিউল করি। বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক লিমিটেড থেকে রিটার্নিং অফিসার বরাবর চিঠি দেয়ার কথা তিনি স্বীকার করে বলেন, তারা ভুল করে চিঠি দিয়েছে এবং এ জন্য আমাকে ‘সরি’ বলেছেন।

এ বিষয়ে রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের দেয়া তথ্যমতে আমরা তার প্রার্থীতা বৈধতা ঘোষনা করি।