ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১১:০২

ওয়াশরুমেই যাদের বিয়ে!

966_10.jpg
ওয়াশরুমে বিয়ের আয়োজনে বর ও কনে। ছবি: ফেসবুকের সৌজন্যে
হাত-মুখ ধোয়ার ঘরটা যতই ফিটফাট হোক না কেন, বিয়ের মতো জাঁকালো অনুষ্ঠান সেখানে সারতে কে চায়? ব্রায়ান আর মারিয়া জুটি অন্তত তা চাননি। কিন্তু সেই ওয়াশরুমেই বিয়ের পর্ব সারতে হলো তাঁদের। আর তা বর ব্রায়ান শুলজের মায়ের জন্য।

এমনভাবে বিয়ে হবে—কল্পনাও করেননি তাঁরা। হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লেন বরের মা। গত ২ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের মনমাউথ কাউন্টি কোর্টহাউসের ওয়াশরুমে এই বিয়ে হয়।

স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার ব্রায়ান দ্য নিউইয়র্ক পোস্টকে বলেন, ‘আমরা বিয়ের জন্য আদালত কক্ষের বাইরে বসে ছিলাম। হঠাৎ আমার মা ফোনে জানালেন, তাঁর শ্বাসকষ্ট হচ্ছে।’

খুঁজে খুঁজে মাকে তিনি ওয়াশরুমে পেলেন। মা ছিলেন দুর্বল, ঘামে ভেজা। কথাও বলতে পারছিলেন না।

মনমাউথ কাউন্ট শেরিফ কার্যালয়ের কর্মকর্তারা ব্রায়ানের মায়ের শুশ্রূষা করেন। তাঁরা তাঁর জন্য অক্সিজেনের ব্যবস্থা করেন।

ফেসবুকে মনমাউথ কাউন্টি শেরিফের কার্যালয় জানায়, মায়ের এই অসুস্থতায় ব্রায়ান ও মারিয়া মানসিকভাবে খুবই বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। তাঁরা বিয়ে পিছিয়ে দিতে চাইছিলেন। কিন্তু বিয়ের নতুন লাইসেন্স করতে তাঁদের আরও ৪৫ দিন অপেক্ষা করতে হতো।

এদিকে ব্রায়ানের মাকে ওয়াশরুম থেকে সরানোও সম্ভব হচ্ছিল না। কারণ, সেখানেই তাঁর জন্য অক্সিজেনের বন্দোবস্ত করা হয়েছিল। এ কারণে কর্মকর্তারা তাঁর সামনেই বিয়ের আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেন।

ওয়াশরুমে গিয়ে বিয়ে পরিচালনা করতে রাজি হন বিচারক কে গামার।

এই ব্যতিক্রমী বিয়ের ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে ফেসবুকে। ১০ হাজারেরও বেশিবার এটি দেখা হয়েছে।

গত ২৫ জানুয়ারি এই ভিডিও প্রথমবার শেয়ার করা হয়।

ভালো খবর হলো, যাঁর কারণে এমন বিয়ের আয়োজন, সেই মা এখন সুস্থ।