ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

স্পোর্টস ডেস্ক:

২২ ডিসেম্বর ২০১৮, ২১:১২

ভারতকে হুমকি দিল আইসিসি

9709_criket.jpg
ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কাছে ক্ষতিপূরণ বাবদ ২৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দাবি করেছে আইসিসি। ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৬০ কোটি রুপি। যা আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণ সংস্থার কোষাগারে জমা দিতে বিসিসিআইকে। এই শর্ত না মানলে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপে খেলতে পারবে না ভারত।

২০১৬ সালে ভারত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজন করেছিল। ওই আসরের কর কমানোর ক্ষতিপূরণ হিসেবে এই অর্থ দাবি করেছে (আইসিসি)।

গত অক্টোবরে সিঙ্গাপুরে আয়োজিত আইসিসির বোর্ড মিটিংয়ের আলোচ্য বিষয়গুলোর মধ্যে অর্থ ফেরতের এই শর্ত উল্লেখ করা হয়েছিল। আইসিসির বর্তমান প্রেসিডেন্ট শশাংক মনোহর আরেকবার বিসিসিআইকে সেই কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন।

আগামী নয়দিনের মধ্যে আইসিসিকে সব পাওনা মিটিয়ে দিতে হবে বিসিসিআইকে। সময়মতো অর্থ পরিশোধে বিসিসিআই ব্যর্থ হলে বর্তমান আর্থিক বছরে ভারতের প্রাপ্য অর্থ থেকে সমপরিমাণ অঙ্ক কেটে নেবে আইসিসি। শুধু তাই নয়, আইসিসি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, ঋণ ফেরত না দিলে ২০২১ সালে ভারত থেকে সরিয়ে নেয়া হবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। ২০২৩ সালে ভারতে হবে না ওয়ানডে বিশ্বকাপও।

আইসিসির প্রত্যেক টুর্নামেন্টের অফিসিয়াল ব্রডকাস্টার স্টার টিভি ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য সব ট্যাক্স কেটে প্রাপ্য বাকি অর্থ তুলে দিয়েছিল আইসিসির কাছে। সেই ক্ষতির অঙ্কই এবার বিসিসিআইয়ের থেকে ফেরত চায় আইসিসি।

উল্টো আইসিসির কাছে মিনিটস-এর কপি দাবি করেছে বিসিসিআই। যা প্রমাণ করবে আদৌ বিসিসিআই কোনো শর্তে রাজি হয়েছিল কি না। কোনো রকম আপস করতে রাজি নয় বিসিসিআই। তাদের বক্তব্য, অন্যায়ভাবে যদি ভারতের রেভিনিউ কেটে নেয়া হয়, তাহলে আইনের সাহায্য নেবে ভারতীয় বোর্ড।