ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG

সিটি করপোরেশন নির্বাচন

২৮ এপ্রিল ২০১৮, ১৬:০৪

এক মঞ্চে ভোটারদের প্রশ্নের উত্তর দিলেন ৫ মেয়র প্রার্থী

53_Kulna.jpg
খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী পাঁচ মেয়র প্রার্থী শনিবার একই মঞ্চে উপস্থিত হয়ে ভোটারদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন। নগরীর শহীদ হাদিস পার্কে সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) উদ্যোগে জনগনের মুখোমুখি নামের এ অনুষ্ঠানে মেয়র প্রার্থীরা ভোটারদের প্রশ্নের উত্তর দেন। তবে বিএনপি প্রার্থীর প্রশ্নোত্তর পর্বে অনুষ্ঠানস্থলে হট্টগোল বেধে যায়।

সুজনের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া এবং উপস্থিত ভোটারদের ভোটাধিকার প্রয়োগের বিষয়ে শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়। এরপর মঞ্চে উপস্থিত ৫ মেয়র প্রার্থীকে অঙ্গীকারপত্র পাঠ করানো হয়। শেষে শুরু হয় মেয়র প্রার্থীদের কাছে ভোটারদের প্রশ্ন।

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক নগরীর যানজট নিরসনে কী উদ্যোগ নেবেন মর্মে একজন ভোটারের প্রথম প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি মেয়র নির্বাচিত হলে সিটি কর্পোরেশন এলাকার মধ্যে ইজিবাইকসহ সকল গণপরিবহন নির্দিষ্ট সংখ্যার মধ্যে আনা হবে।

দ্বিতীয় প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মেয়র নির্বাচিত হলে নগরীতে মাদক বিক্রেতাসহ হোতাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। খুলনা সিটিকে একটি মাদকমুক্ত নগরী করা হবে। তৃতীয় পশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিগত দিনে আমি সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ছিলাম। আমার কর্মকাণ্ড সম্পর্কে নগরবাসী অবগত আছেন। নারী বান্ধব গণপরিবহন চালুসহ আধুনিক নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে তিনি সর্বাত্মক চেষ্টা করবেন বলে উল্লেখ করেন।

উপরোক্ত তিনটি প্রশ্নের বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুর উত্তর দেয়ার সময় অনুষ্ঠানস্থলে হট্টগোল শুরু হয়। মঞ্জু দুটি প্রশ্নের জবাব দেয়ার পর তৃতীয়টির উত্তর দিতে শুরু করলে একপক্ষ হট্টগোল শুরু করে। এ অবস্থায় অনুষ্ঠানের সঞ্চালক প্রশ্নকারীকে থামিয়ে দেন। সঞ্চালক ড. বদিউল আলম মজুমদার প্রশ্নটি উদ্দেশ্যমূলক আখ্যা দিয়ে প্রশ্নোত্তর পর্ব সমাপ্তি ঘোষণার চেষ্টা করেন। পরের অপর একজনের প্রশ্নের উত্তরে বিএনপি প্রার্থী মঞ্জু বলেন, শিক্ষাঙ্গন সন্ত্রাসীদের দখলে, চলছে মাদক ব্যবসা ও ভর্তি বাণিজ্য।

তিনি নির্বাচিত হলে শিক্ষাঙ্গনকে সন্ত্রাস, মাদকমুক্ত ও ভর্তি বাণিজ্য বন্ধ করবেন। অন্য দুটি প্রশ্নের জবাবে মঞ্জু বলেন, আমি মেয়র নির্বাচিত হলে, খেলার মাঠ তৈরী ও বিনোদনের ব্যবস্থা করব। পাশপাশি সার্কিট হাউজ ময়দানে বাণিজ্য মেলা হবে না, খেলার জন্য উন্মুক্ত থাকবে এবং নগরীকে যানজটমুক্ত রাখতে ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র চলাচল একমুখী করা হবে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মেয়র প্রার্থী মাওলানা মুজ্জাম্মিল হক উত্তরে বলেন, সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে মাদকমুক্ত খুলনা শহর গড়ে তুলবেন।
সিপিবির প্রার্থী মিজানুর রহমান বাবু প্রশ্নের উত্তরে বলেন, নতুন করারোপ করা হবে না। দুর্নীতিমুক্ত নগরভবন গড়ে তোলা হবে।

জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী এস এম শফিকুর রহমান প্রশ্নের উত্তরে বৈষম্যহীন নগরভবন এবং ধর্মীয় অনুশাসন মেনে মাদকমুক্ত খুলনা মহানগরী গড়ে তুলবেন বলে জানান।